মুসার সম্পত্তির কাছে বিল গেটসরা এখনো শিশু !

বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তিদের কথা বলতে গেলেই যাদের নাম মাথায় আসে তাদের মধ্যে সবচেয়ে পরিচিত বিল গেটস, জেফ বেজোস বা মুকেশ আম্বানি।

তবে তারা সম্পদের দিক থেকে অতীতের অনেকের চেয়েও পিছিয়ে আছেন!

আফ্রিকার বর্তমান গরিব দেশ মালির সাবেক রাজা মানসা মুসার সম্পত্তির কাছে বিল গেটসরা এখনো শিশু। এমনকি ইতিহাসের কোনো রাজা-বাদশাহও তার মতো সম্পত্তির মালিক হতে পারেনি।

ফোর্বস ম্যাগাজিনের তথ্য অনুযায়ী, ২০১৮ সালে বিশ্বের সবচেয়ে ধনী আমাজনের সিইও জেফ বেজোস (১১২ বিলিয়ন ডলার)। তারপর মাইক্রোসফট প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস (৯০ বিলিয়ন ডলার) এবং মার্কিন সংস্থা বার্কশায়ার হাথাওয়ের অধিকর্তা ওয়ারেন বাফে (৮৪ বিলিয়ন ডলার)। ভারতের মধ্যে সবচেয়ে ধনী মুকেশ আম্বানী (৩৯ বিলিয়ন ডলার)।

জেফ বেজোসের সম্পত্তি যেখানে ১১২ বিলিয়ন ডলার সেখানে রাজা মানসা মুসার সম্পত্তি ছিল ৪০০ বিলিয়ন ডলার। তাকে সর্বকালের সেরা ধনী বলা হয়ে থাকে।

মানসা মুসা মালির রাজা ছিলেন তিনি। ১৩১২ সালে মালির সিংহাসনে বসেন মুসা কেইটা-১। সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রে ইভানস্টোনে নর্থওয়েস্টার্ন ইউনিভার্সিটিতে তার জীবন নিয়ে একটি প্রদর্শনী হয়।

প্রদর্শনীতে বলা হয়, তার সম্পত্তির পরিমাণ এত ছিল যে, ভবিষ্যতেও কেউ তা ছুঁতে পারবেন না। আফ্রিকার মালির মতো এত গরিব দেশের রাজা কীভাবে সর্বকালের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি হলেন? প্রশ্নটা আসতেই পারে।

ইতিহাসবিদরা বলেন, সে সময়কার পরিস্থিতি ছিল বর্তমান পরিস্থিতির ঠিক উল্টো। আফ্রিকা তখন ফুলেফেঁপে উঠেছে। মালি সাম্রাজ্য তখন মূল্যবান প্রাকৃতিক সম্পদে পরিপূর্ণ ছিল।

প্রকৃত অর্থেই সোনা ফলত মালির মাটিতে। আর সেই সোনাই তাঁকে সর্বকালের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তিতে পরিণত করেছে।

ক্ষমতায় আসার পর নিজের সাম্রাজ্যের বিস্তৃতি ঘটিয়েছিলেন মুসা। সেনেগাল, গাম্বিয়া, গিনিয়া, বুরকিনা ফাসো, মালি, নাইজেরিয়ার ওপর আধিপত্য বিস্তার করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *