ভোট বর্জন, নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন চায় ঐক্যফ্রন্ট

নির্দলীয় সরকারের অধীনে দ্রুত সময়ের মধ্যে পুনরায় নির্বাচন দাবি করেছেন ড.কামাল। আজ রোববার ৩০ ডিসেম্বর রাত ৮টায় ঐক্যফ্রন্টের আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলন থেকে এই দাবি জানানো হয়েছে।এই নির্বাচন প্রত্যাখ্যান করে নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন দাবি করেন ড. কামাল। এ সময় তিনি বাংলা ও ইংরেজিতে তার লিখিত বক্তব্য পেশ করেন।

তিনি বলেন, ‘গণতন্ত্রকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দেওয়ার আন্দোলন অব্যাহত থাকবে। আগামীকাল আমরা আলোচনা করে আরও বিস্তারিত জানাবো।
সংবাদ সম্মেলনে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও জাফরুল্লাহ চৌধুরীসহ ঐক্যফ্রন্টের অন্যান্য শীর্ষনেতারা উপস্থিত ছিলেন।

নিয়মে নেই, তবু মধ্যাহ্নভোজের বিরতি! বিরতিহীনভাবে ভোটগ্রহণের নির্দেশ থাকলেও ‘মধ্যাহ্নভোজের বিরতি’র অজুহাত ‍দিয়ে ভোটারদের দাঁড় করিয়ে রাখার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঢাকা-৭ আসনের অন্তত চারটি কেন্দ্রে এ ধরণের ঘটনা ঘটেছে। ঢাকা-১৭ আসনে ভাষানটেক স্কুল অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্রেও একইভাবে মধ্যাহ্নভোজের বিরতি দেওয়া হয়েছে।

সকাল ৮টা থেকে বিরতিহীনভাবে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণের কথা থাকলেও রহমতুল্লাহ উচ্চবিদ্যালয়, কেএম বশীর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, আজিমপুর গালর্স স্কুল এবং লালবাগ প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মধ্যাহ্নভোজের বিরতি দেওয়া হয়েছে। এ সময়ে ভোট গ্রহণ পুরোপুরি বন্ধ রাখা হয়।

এসব কেন্দ্রের প্রিজাইডিং কর্মকর্তারা ও নৌকার এজেন্টরা ভিতর থেকে ঘণ্টাখানেক দরজা বন্ধ করে রাখেন। এ সময় কেন্দ্রের বাইরে রাস্তায় ভোটারদের অপেক্ষা করতে দেখা যায়। বিরক্ত হয়ে অনেক ভোটার চলে যান। রহমতুল্লাহ উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্রের এক ভোটার বলেন, ‘ভোটারদের কেন্দ্রের ভেতরে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না। প্রায় ১ ঘণ্টা ধরে আমরা বাইরে দাঁড়িয়ে আছি।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *