গবেষণা বলছে, মাথাব্যথার ওষুধ যৌনমিলন

মাইগ্রেনের যন্ত্রণায় অনেকেই অতিষ্ঠ। মাইগ্রেন হলো এক বিশেষ ধরনের মাথাব্যথা যা মাথার যেকোন এক পাশ থেকে শুরু হয়ে অনেক সময় পুরো মাথায় ছড়িয়ে পড়ে। মস্তিষ্কে স্বাভাবিক রক্তপ্রবাহ ব্যাহত হয়। মাথাব্যথার সঙ্গে বমি বমি ভাব এবং রোগীর দৃষ্টিবিভ্রম হতে পারে। তবে এই সমস্যার সমাধান দিয়েছেন গবেষকরা। তারা জানিয়েছেন, মাইগ্রেনের অন্যতম দাওয়াই হলো সেক্স।

বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, মাইগ্রেন সমস্যা থেকে মুক্তির অন্যতম উপায় হচ্ছে শারীরিক সম্পর্ক। সেফালালজিয়া জার্নালে প্রকাশিত গবেষণায় গবেষকরা বলছেন, শারীরিক সম্পর্কে মিলিত হলে প্রায় এক তৃতীয়াংশ রোগী মাইগ্রেন এবং ক্লাস্টার হেডএইক থেকে মুক্তি পেতে পারেন। এমনকি বেশ কয়েকজন রোগীও জানিয়েছেন যে মাইগ্রেনের সমস্যায় তাদের অন্যতম ওষুধ হলো সেক্স।

শারীরিক সম্পর্কের সময় ইনড্রোফিনস নামক হরমোন নির্গত হয়, যাকে প্রাকৃতিক ব্যথানাশক বলা হয়ে থাকে। এই হরমোন আংশিক কিংবা পুরোপুরি মাথা ব্যথা সাড়াতে সক্ষম বলে গবেষকরা জানিয়েছেন। গবেষক ও জার্মানির ইউনিভার্সিটি অব মানস্টার এর নিউরোলজিস্ট স্টিফান এভারস বলেন, ‘এক তৃতীয়াংশ রোগী জানিয়েছেন যে তারা সেক্সুয়াল অ্যাকটিভিটির মাধ্যমে মাইগ্রেন অ্যাটাক থেকে মুক্তি পেয়েছেন।

গবেষকরা বলছেন, সেক্সুয়াল অ্যাকটিভিটির ফলে এনডরফিন উৎপন্ন হয় যা মস্তিষ্কে ন্যাচারাল পেইন কিলার হিসেবে কাজ করে। গবেষণাটি ৮০০ রোগীর উপর চালানো হয়েছে যাদের মাইগ্রেন আছে এবং ২০০ জনের উপর যাদের ক্লাস্টার হেডএইক আছে। সেক্সুয়াল অ্যাকটিভিটি কীভাবে তাদের মাথা ব্যথার প্রকোপ কমিয়েছে সেটা তারা জরিপে জানিয়েছে।

এতে দেখা গেছে প্রতি ১০ জনে অন্তত ৪ জন জানিয়েছে, সেক্সুয়াল অ্যাকটিভিটি তাদের মাথা ব্যথা কমিয়ে দেয়। ৬০ শতাংশ জানিয়েছে, তাদের মাথা ব্যথা পুরোপুরি অথবা কিছুটা কমে। তবে এক কিছু মানুষ জানায়, সেক্সুয়াল অ্যাকটিভিটি তাদের মাথা ব্যথা কমানোর বদলে উল্টো বাড়িয়ে দিয়েছে। লাইভ সাইন্স।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *